মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

পূর্ববতী মামলার রায়

১০নং আটুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ

ডাকঘরঃ নওয়াবেঁকী, উপজেলাঃ শ্যামনগর জেলাঃ সাতক্ষীরা।

পূর্ববতী মামলার রায়

সালিশী প্রতিবেদন

          বাদীঃ                                                             বিবাদীঃ

          মোঃ দেলবার গাজী                                   ১। হালিমা খাতুন, স্বামী- আব্দুর রশিদ

          পিং-মৃতঃ মোজাহার গাজী                            ২। আব্দুর রশিদ, পিং-মৃতঃ হারেজ গাজী

          সাং- উত্তর আটুলিয়া                                  উভয় সাং- উত্তর আটুলিয়া                  

         শ্যামনগর, সাতক্ষীরা।                                ৩। এনছার গাইন, পিং- মৃতঃ আদেল গাইন

                                                                   সাং- হাওয়ালভাঙ্গী

                                                                   ৪। মজিদ গাজী, পিং- মৃতঃ জববার গাজী

                                                                   সাং- উত্তর আটুলিয়া

                                                                   ৫। মোসলেম মোল্যা, পিং- মৃতঃ হামেজুদ্দীন মোল্যা

                                                                   সাং- উত্তর আটুলিয়া

                                                                   ৬। ছলেমান গাজী, পিং- মৃতঃ হামেজুদ্দীন মোল্যা

                                                                   সাং-হাওয়ালভাঙ্গী

                                                                   শ্যামনগর, সাতক্ষীরা।

                   বাদী পক্ষের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে জনাব চেয়ারম্যান সাহেব ৪ জন ইউপি সদস্য মন্ডলীর উপর শুনানী দায়িত্বভার অর্পন করায় নোটিশ প্রদানে ধার্য দিনে উভয় পক্ষকে হাজির হতে বলা হয়। ১নং ও ২নং বিবাদী অনুপস্থিত থাকায় পূনরায় ২৭/০৭/২০১৩ তারিখে বিচারের দিন ধার্য্য করা হয় কিন্তু ১নং ও ২নং বিবাদী গর হাজির থাকায় বাদী ও অন্যান্য বিবাদীদের উপস্থিতিতে উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনা হয়। বাদীর কাগজ পত্র দেখা  হয় এবং বিবাদীগনের কাগজ পত্র দেখা ও পর্যালোচনা করা হয়। বাদীর দাবীকৃত জমির বিপক্ষে বিবাদীগন ডিপি ৫৮৬ নং খতিয়ান অনুযায়ী ২০১৯/৭০৪৯ দাগে ১.১৩ শতকের ভিতর .৭৪ শতক জমি পাইয়াছে। তাছাড়া স্কেস ম্যাপ অনুযায়ী তাহার জমি সেখানে না । বিবাদীগন জোর পূর্বক বাদীর জায়গা দখল করে। বিবাদীগনের নিকট হইতে জিজ্ঞাসা করায় ৫নং বিবাদী মোসলেম মোল্যা বলেন যে, ৪নং বিবাদীর পাশে ৩(তিন) বিঘা জমি দখল করিয়া আসিতেছিল কিন্তু বাদী ভারতে কাজ করিতে গেলে ১নং বিবাদী জোর পূর্বক দখল করিয়া নিয়া ভোগ দখল করিতেছে। ৪ নং বিবাদী বলেন যে, বাদী আমার পাশে ৩ (তিন) বিঘা জমি ভোগ দখল করিয়া আসিতেছি। বাদী ভারতে কাজ করতে গেলে ১নং বিবাদী গায়ের জোরে দখল করিয়া ভোগ দখল করিয়া আসেতেছে।

 

          মতামতঃকাগজ পত্র পর্যালোচনা ও বিবাদীগনের স্বাক্ষ্যয় পূর্বক দেখা যায় ১নং ও ২নং বিবাদী বাদীর জমি জোর পূর্বক দখল করিয়া চাষাবাদ করিতেছে। এর আগে ঔ জমি বাদী প্রায় ১০/১২ বছর দখল করিয়া চাষাবাদ করিত। যা প্রকৃত পক্ষে বাদির প্রাপ্য হইবেন। বাদী নিরিহ মানুষ ও শামিত্ম প্রিয় লোক যাহাতে উদ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট সুবিচার পাইতে পারে তার সু-ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য জোর সুপারিশ করা গেল।

 


Share with :

Facebook Twitter